ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের ভেতরে অ’জ্ঞা’ন পার্টির খ’প্প’রে পড়েছে এক রোগীর স্বজন। অ’জ্ঞা’ন পার্টির খ’প্প’রে অ’চে’তন ওই নারীর নাম মরিয়ম বেগম। ওই নারীর স্বজনরা দা’বি করেছেন অ’চে’ত’ন করে মরিয়মের কানের দুল ও গলার চেইন নিয়ে গেছে অ’জ্ঞা’ন পার্টির সদস্যরা।
আজ শনিবার বিকেলের দিকে হাসপাতালে ২১২ নম্বর গাইনি ওয়ার্ডের ভেতরের বারান্দায় এই ঘটনাটি ঘটে। পারিবার জানায়, অ’চে’তন ম’রিয়মের মেয়ে সাথী সন্তান স’ম্ভ’বার কারণে গত বুধবার ওই ওয়ার্ডে ভর্তি হন। শুক্রবার তাকে দে’খা’শো’না করার জন্য মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান উপজেলা থেকে মা মরিয়ম বেগম হাসপাতলে আসেন।

সাথীর বোনজামাই হারুন-অর-রশিদ জানান, বিকেলের দিকে ওই ওয়ার্ডের বা’রা’ন্দা’য় পাটি বিছিয়ে বসেছিলেন তার শ্বাশুড়ি মরিয়ম বেগম। পাশে অন্যান্য রোগীর স্বজনরা ছিলেন। দুই নারী এসে আমার শাশুড়ির সঙ্গে নিজে থেকেই কথা বলছিল। এক পর্যায়ে শ্বাশুড়িকে বলে পান খান। পরে পান খাওয়ার পর চুল আ’ছড়ে দেয়।

অল্প কিছুক্ষণ পরেই আমার শ্বাশুড়ি অ’চে’তন হয়ে পড়েন। তখন নারী দুজন সবার অ’গো’চ’রে আমার শ্বাশুড়ির কান থেকে সোনার দুটি দুল ও গলায় থাকা চেন নিয়ে যায়। ঘটনার সময় আমার শ্বাশুড়ির পাশে আমি ছিলাম না। আশেপাশের লোকজনের কাছ থেকে এসব ঘ’ট’না শুনেছি।

এ সম্পর্কে হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের বাচ্চু মিয়া বলেন, ২১২ ওয়ার্ড হচ্ছে হাসপাতালে ভেতরে। ওখানে আনসার সদস্যরা রাতদিন ২৪ ঘণ্টা ডিউটি করে। তাদের স্বজনকে বলেছি শাহবাগ থানায় একটা জিডি করতে। জিডির পরি’প্রে’ক্ষি’তে সিসি ক্যামেরা দেখে অ’জ্ঞা’ন পার্টির সদস্যদের শ’না’ক্ত করা যাবে।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার পরপরই অ’চে’ত’ন মরিয়ম বেগমকে জরুরি বিভাগে ডাক্তারকে দেখিয়ে তাদের প’রা’ম’র্শে পাকস্থলী ওয়াশ করা হয়েছে। সে এখনো অ’চে’ত’ন অবস্থায় আছেন।

News Page Below Ad